নভেম্বর ০১, ২০১৪, শনিবার গভীর রাত; ১২:২৩:১৫ November 1, 2014,Saturday, 12:23 AM
 
  • ব্যাঙ: মূল: মো ইয়ান অনুবাদ: সায়ীদ আবুবকর
  • সায়ীদ আবুবকরের কবিতা
  • উত্তর-ঔপনিবেশিক কবি নজরুল ড. ফজলুল হক তুহিন
  • ডিজিএফআই প্রধান পরিবর্তন
  • আব্দুল জলিলের মরদেহ ঢাকায়, দাফন শুক্রবার
সর্বশেষ ২৪
সর্বাধিক পঠিত

অনলাইন জরিপ

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মহিউদ্দিন খান আলমগীর এবং ড.মাহফুজুর রহমানকে মানবাধিকার পুরুস্কার দেওয়া কে দেশে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য ইতিবাচক মনে করেন কি?

   

yes

   

No

   

No Commence

এ সপ্তাহের আয়োজন
নি:সঙ্গতা: আবুল হাচান অতোটুকু চায় নি বালিকা! অতো শোভা, অতো স্বাধীনতা! চেয়েছিলো আরো কিছু কম, আয়নার দাঁড়ে দেহ মেলে দিয়ে বসে থাকা সবটা দুপুর, চেয়েছিলো মা বকুক, বাবা তার বেদনা দেখুক বিস্তারিত পড়ুন »
   
রিপোর্ট ১৯৭১ – আসাদ চৌধুরী
প্রাচ্যের গানের মতো শোকাহত, কম্পিত, চঞ্চল বেগবতী তটিনীর মতো স্নিগ্ধ, মনোরম আমাদের নারীদের কথা বলি, শোনো। এ-সব রহস্যময়ী রমণীরা পুরুষের কণ্ঠস্বর শুনে বৃক্ষের আড়ালে স’রে যায়- বেড়ার ফোঁকড় দিয়ে নিজের রন্ধনে তৃপ্ত অতিথির প্রসন্ন ভোজন দেখে....বিস্তারিত পড়ুন »
মনে হয় একদিন-জীবনানন্দ দাশ
মনে হয় একদিন আকাশে শুকতারা দেখিব না আর ; দেখিব না হেলেঞ্চার ঝোপ থেকে একঝাড় জোনাকি কখন নিভে যায় – দেখিব না আর আমি এই পরিচিত বাঁশবন , শুঁকনো বাঁশের পাতা -ছাওয়া মাটি হয়ে যাবে গভীর আঁধার আমার চোখের কাছে – লক্ষ্মীপূর্ণিমার রাতে সে কবে আবার পেঁচা ডাকে জোছনায় – হিজলের বাকা ডাল করে গুঞ্জরন ;....বিস্তারিত পড়ুন »
জেলগেটে দেখা – আল মাহমুদ
সেলের তালা খোলা মাত্রই এক টুকরো রোদ এসে পড়লো ঘরের মধ্যে আজ তুমি আসবে । সারা ঘরে আনন্দের শিহরণ খেলছে । যদিও উত্তরের বাতাস হাড়েঁ কাঁপন ধরিয়ে দিয়ে বইছে , তবু আমি ঠান্ডা পানিতে হাত মুখ ধুয়ে নিলাম। পাহারাদার সেন্ট্রিকে ডেকে বললাম, আজ তুমি আসবে । সেন্ট্রি হাসতে হাসতে আমার সিগ্রেটে আগুন ধরিয়ে দিল । বলল , বারান্দায় হেটেঁ ভুক বাড়িয়ে নিন দেখবেন , বাড়ী থেকে মজাদার খাবার আসবে ।....বিস্তারিত পড়ুন »
তোমার চোখ এতো লাল কেন? – নির্মলেন্দু গুণ
আমি বলছি না ভালোবাসতেই হবে , আমি চাই কেউ একজন আমার জন্য অপেক্ষা করুক, শুধু ঘরের ভেতর থেকে দরোজা খুলে দেবার জন্য । বাইরে থেকে দরোজা খুলতে খুলতে আমি এখন ক্লান্ত ।....বিস্তারিত পড়ুন »
নিংসঙ্গতা: আবুল হাচান
অতোটুকু চায় নি বালিকা! অতো শোভা, অতো স্বাধীনতা! চেয়েছিলো আরো কিছু কম, আয়নার দাঁড়ে দেহ মেলে দিয়ে বসে থাকা সবটা দুপুর, চেয়েছিলো মা বকুক, বাবা তার বেদনা দেখুক....বিস্তারিত পড়ুন »
কবিতা : স্বেচ্ছাচারিতা কোন স্বাধীনতা নয়:শাহ আকরাম রিয়াদ
যদি স্বেচ্ছাচারী হও, যদি ইচ্ছের হাতে করে বেড়াও ন্যায় ও ধর্মবিরুদ্ধ আচরণ কেড়ে নাও কারো প্রাণ অথবা মুখের গ্রাস তবে বন্দী হও তুমি পরাধীনতা শৃঙ্খলে স্বেচ্ছাচারিতা কোন স্বাধীনতা নয়....বিস্তারিত পড়ুন »
ছোট গল্প:বাবার চিঠি :এনামুল হক টগর
থিবীর গভীর গুহা ভেদ করে অন্তহীন আঁধার রাত্রির বুক থেকে শতাব্দীর বন্দী মানুষ গুলোর কান্না ভেসে আসে মোহর আলীর কানে। মনে হয় চেনা অচেনা পথের সুদূর ধ্বনি।....বিস্তারিত পড়ুন »
ব্যাঙ মূল: মো ইয়ান অনুবাদ: সায়ীদ আবুবকর
মো ইয়ান পুনর্গঠন এবং জাগরণের সময়ে চীনা ভাষায় কয়েক ডজন ছোট গল্প এবং উপন্যাস প্রকাশের মাধ্যমে লেখক হিসেবে আবির্ভূত হন। তাঁর প্রথম উপন্যাস \\\'ফলিং রেইন অন এ স্প্রিং নাইট\\\' ১৯৮১ সালে প্রকাশ করেন। অনেক উপন্যাসই পূর্ব এশিয়ান ভাষাবিশারদ ও নটরড্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হাওয়ার্ড গোল্ডব্লাটের সহায়তায় ইংরেজিতে অনূদিত হয়ে প্রকাশিত হয়। ১১ অক্টোবর, ২০১২ সালে সুইডিশ একাডেমি মো ইয়ানের নাম ঘোষণা করে। সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার প্রদানে \\\'তাঁর সাহিত্যকর্মে রূপকথা, লোকগাঁথা, ইতিহাস এবং সমসাময়িক ঘটনাকে অলীক বাস্তবতার মাধ্যমে উপস্থাপনের অসাধারণ ক্ষমতাকে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে\\\'। চীনের মূল ভূ-খণ্ডের অধিবাসী হিসেবে তাঁর প্রথম এ পুরস্কারপ্রাপ্তি। তাঁর পূর্বে ২০০০ সালে চীনে জন্মগ্রহণকারী ফ্রান্সের অধিবাসী গাও জিংজিয়ান পুরস্কার লাভ করেছিলেন। ....বিস্তারিত পড়ুন »
সায়ীদ আবুবকরের কবিতা
সায়ীদ আবুবকর নব্বই দশকের অন্যতম শক্তিমান কবি।পেশায় ইংরেজির অধ্যাপক। তার বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় লেখার হাত সমান্তরাল । অনেক ভাষায় কবি সায়ীদ আবুবকরের লেখা অনুদিত হয়েছে। পাঠকের কাছে তার কয়েক টি কবিতা উপস্থাপন করা হল:-সায়ীদ আবুবকরের কবিতা....বিস্তারিত পড়ুন »
উপনিবেশোত্তর আফ্রিকান সাহিত্য-অবনি অনার্য
কটি দেশে উপনিবেশ গড়বার পর আধিপত্যবাদী শক্তি যা যা করে আফ্রিকার ক্ষেত্রেও সেটার কিছুমাত্র কম হয়নি। আধিপত্যবাদী শক্তি অধীন-দেশের সবচেয়ে স্পর্শকাতর এবং গুরুত্বপূর্ণ সত্তা, সংস্কৃতির একেবারে গোড়ায় আঘাত হানে। শুধু সেটাই নয়, পুরো দেশের রাজনীতিক-অর্থনৈতিক-সামাজিক কাঠামো আগ্রাসী শক্তির কাঠামো কর্তৃক প্রতিস্থাপিত হয়, শিক্ষাব্যবস্থা হয়ে পড়ে স্থানীয় সমাজবিচ্ছিন্ন। ইতিহাস আমাদের এই শিক্ষা দেয়। ইতিহাস আমাদের এও জানান দেয় যে, কর্তৃত্বের পরাজয় একদিন ঘটে, কিন্তু ধর্ষণের পর যদি ধর্ষিতা গর্ভবতী হয়ে পড়ে তখন ধর্ষণের কষ্ট ছাপিয়ে যেমন আরো তীব্র হয় ধর্ষণের ফল টানার লাঞ্ছনা, তেমনই আধিপত্যবাদ নিজের পরাজয়ের আগে অধীন দেশের গর্ভে দিয়ে যায় পররমুখাপেক্ষী-অর্থনৈতিক কাঠামো, নিজের পছন্দ মতো তাঁবেদার স্থানীয় শাসক, সমাজ বাস্তবতা বর্জিত শিক্ষাব্যবস্থা এবং শ্রেণীবৈষম্যের বীজ। কালে কালে সেই পাপের ফল টানতে হয় ধর্ষিতা ভূখণ্ডকে। আফ্রিকার ক্ষেত্রে এসব জানবার জন্য ইতিহাস জানার প্রয়োজন সীমিত, তাদের সাহিত্য বরং আমাদের সাহায্য করবে ইতিহাস আসলে কেমন হয় সেটা জানতে।....বিস্তারিত পড়ুন »
উত্তর-ঔপনিবেশিক কবি নজরুল ড. ফজলুল হক তুহিন
ধ্বংস দেখে ভয় কেন তোর?-প্রলয় নূতন সৃজন-বেদন! আসছে নবীন-জীবন-হারা অসুন্দরে করতে ছেদন! তাই সে এমন কেশে-কেশে প্রলয় বয়েও আস্ছে হেসে ভেঙে আবার গড়তে জানে সে চির-সুন্দর! তোরা সব জয়ধ্বনি কর! কবিজীবনের প্রথম কাব্য ‘অগ্নিবীণা’র প্রথম কবিতা ‘প্রলয়োল্লাসে’ কাজী নজরুল ইসলাম প্রথম নতুনের পতাকাবাহী, প্রথম উপনিবেশবিরোধী ও উত্তর-ঔপনিবেশিক বিপ্লবী, প্রথম রবীন্দ্র-দ্রোহী, প্রথম সুন্দরের ত্রাণকর্তারূপ কবিরূপে আবির্ভূত হনÑ আধুনিক বাংলা কবিতভুবনে। এই প্রথম হওয়ার পেছনে কাজ করেছে তাঁর স্বদেশী সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্য, বিশ্বযুদ্ধের অভিজ্ঞতা, জনসাধারণের লাঞ্ছিত-বঞ্চিত পরাধীন জীবনের সীমাহীন দুর্ভোগের উপলব্ধি ও দায়বোধ এবং মৌলিক দৃষ্টি ও সৃষ্টির সাহিত্যিক সক্ষমতা। স্বাধীন চিত্তের অধিকারী নজরুল তাই বাংলা কাব্য ও সংস্কৃতির জগতে উত্তর-ঔপনিবেশিক তরঙ্গ সৃষ্টি করেন স্বাভাবিক ছন্দে।....বিস্তারিত পড়ুন »
কবিতা : বেদনা সিক্ত ভালোবাসা তালহা ইবনে নসিম
কত কথা, কত সুখ, সুখময় স্মৃতি ভেসে ভেসে ছুঁয়ে যায় হৃদয়ের কোল উন্মুক্ত চাঁদনীরাতে জেগে থাকি সঙ্গহীন আর কেন আসে না হে মরমী বধূ! আকাশে মেঘ জমে মেঘে উড়ে উড়ে ভেসে যায় দুরদেশে আমার হৃদয়ের তৃষ্ণার্ত মরুউদ্যানে ঝরবে কি বৃষ্টি হয়ে কোনদিন? ঝরণা হয়ে সিক্ত করে দেবে কি মিলনের মহাসুখ?....বিস্তারিত পড়ুন »
রায় রাজনৈতিক, মৃত্যুদণ্ড স্থগিত দরকার: এফআইডিএইচ
মাসখানেক ধরে সহিংস বিক্ষোভে নারী ও শিশুসহ অন্তত ৯৮ জনের নিহতের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন ফর হিউম্যান রাইটস বা এফআইডিএইচ। বিশ্বের মানবাধিকার সংগঠনগুলোর সবচেয়ে বড় এই ফোরামটি দেশের সংশ্লিষ্ট সব দল এবং কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে রাজনৈতিক সংলাপে বসার ওপর জোর দিয়ে বলেছে, নিজ নিজ সমর্থকদের কোন ধরনের রাজনৈতিক সহিংসতায় কিংবা রাজনৈতিক বিরোধীদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের ক্ষতিকর প্রচারকাজে লিপ্ত না হতে যেনো দলগুলো আহ্বান জানায়।....বিস্তারিত পড়ুন »
প্রেমিকের প্রতিদ্বন্দ্বী –আবুল হাসান
অতো বড় চোখ নিয়ে, অতো বড় খোঁপা নিয়ে অতো বড় দীর্ঘশ্বাস বুকের নিশ্বাস নিয়ে যতো তুমি মেলে দাও কোমরের কোমল সারশ যতো তুমি খুলে দাও ঘরের পাহারা যতো আনো ও-আঙ্গুলে অবৈধ ইশারা যতো না জাগাও তুমি ফুলের সুরভী....বিস্তারিত পড়ুন »